স্মরণশক্তি বাড়ানোর কিছু কলা কৌশল

মোট দেখেছে : 30
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

মিলি দশম শ্রেণীর ছাত্রী। ওর বড় সমস্যা হচ্ছে পড়া শেখার পর বেশিক্ষণ মনে রাখতে পারে না। দু-এক দিন পরই ভুলে যায়। ভুলে যাওয়ার কারণে ওর পরীক্ষার ফল কখনোই ভালো হয় না। শুধু তাই নয়, রেজাল্ট খারাপ হওয়ার কারণে বাসায় এবং স্কুলেও তাকে প্রায়ই তিরস্কার শুনতে হয়। কিন্তু মানুষ চেষ্টা করলে তার স্মরণশক্তির মাত্রা বাড়াতে পারে। • জটিল বিষয়বস্তুকে যদি ধাপে ধাপে সুসংগঠিত করে শেখা যায়, অনায়াসে স্মরণ করা সম্ভব। • কিছু শেখার পর ঘুমাতে পারলে ভালো ফল পাওয়া যায়। শিক্ষণীয় বিষয়গুলো তখন কোনো রকম ঝুটঝামেলা ছাড়াই আসন কেড়ে নিতে পারে স্মৃতির পাতায়।


• সম্প্রতি এক গবেষণায় জানা গেছে, এক ধরনের ফ্যাটি এসিড ব্রেনের বিভিন্ন কার্যক্রমের জড়তা দূর করে, চিন্তা শক্তির প্রখরতা বাড়ায়। এই ফ্যাটি এসিডটির নাম ওমেগা তিন। সামুদ্রিক মাছে পর্যাপ্ত ওমেগা তিন রয়েছে। বিশেষ করে ইলিশ, রূপচাঁদা এবং চিংড়ি মাছে ওমেগা তিন-এর পরিমাণ সবচেয়ে বেশি।
• সবার ওপরে মন। থাকতে হবে মনের একাগ্রতা, অদম্য ইচ্ছা ও দৃঢ়তা। তবেই স্মৃতির ভিত হবে উন্নততর, সমুজ্জ্বল। সফলতার জন্য দরকার দৃঢ় স্মরণশক্তি। স্মৃতিশক্তি দুর্বল হলে শিক্ষাজীবন কি কর্মজীবন সব ক্ষেত্রেই প্রবল বাধার মুখোমুখি হতে হয়।

• হয়তো আপনি গত বছর ঘুরে আসা গ্রামটির কথা মনে করতে পারছেন না, পারছেন না ঘরের বা অফিসের চাবিটা কোথায় রেখেছেন, মনে করার চেষ্টা করুন। ভাবছেন স্মৃতিশক্তি কত দুর্বল আপনার। প্রায় সময়, কাজের বিষয়াদি ভুলে যান। ফলে জরুরি মুহূর্তে বিরক্তিকর বাধার সম্মুখীন হয়ে পড়েন। আপনি ভাবছেন, এ অবস্থা থেকে কিভাবে নিজেকে মুক্ত করবেন। আমাদের স্মৃতিতে এ ধরনের ব্যাঘাত ঘটে মূলত স্মৃতিকে কম ব্যবহারের ফলেই। এ জন্য স্মরণশক্তি বাড়াতে তথ্যকে বারবার স্মরণ করতে হবে।

• বারবার পড়তে হবে। জানা থাকলেও বারবার আবৃত্তি করতে হবে। মনে আছে এমন বিষয় পরপর কয়েকবার রিহার্সেল দিতে পারলে স্মৃতির ভাণ্ডারে স্থায়ী আসন গেড়ে বসে। সহজে উড়ে যেতে পারে না।
• শেখার পর লেখার চর্চা করতে পারলে লাভ হয় সবচেয়ে বেশি। লিখে লিখেও শেখার ফল ভালো হয়। 
• শেখা বিষয় থেকে প্রশ্ন তৈরি করে মনে মনে উত্তর খুঁজে নেয়ার চর্চাও গুরুত্বপূর্ণ।
• মনে রাখার একটি সহজ উপায় হচ্ছে ছন্দবদ্ধ করে শেখা। আমরা ছড়া শিখি, গান এভাবে অন্য বিষয়ও শেখা যায়। 
• যা শেখা হচ্ছে, কেবল গড়গড় করে মুখস্থ করে গেলেই চলবে না। একটু নেড়েচেড়ে দেখতে হবে কী শিখলাম, দেখতে হবে যা আগে শিখেছি তার সাথে নতুন শেখা বিষয়ের মিল আছে কি না।

আরো দেখুন

সর্বশেষ ফটো