পারমাণবিক অস্ত্রের বোতাম আমার ডেস্কে থাকে

মোট দেখেছে : 3
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন যুক্তরাষ্ট্রকে হুশিয়ার করে বলেছেন, পারমাণবিক অস্ত্রের একটি বোতাম সবসময় তার ডেস্কে থাকে। সুতরাং যুক্তরাষ্ট্র কখনো যুদ্ধ শুরু করতে পারবে না। তবে প্রতিবেশি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সবসময়ই আলোচনার দরজা তিনি খোলা রাখছেন বলেও জানিয়েছেন। একইসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে আসন্ন শীতকালীন অলিম্পিকে একটি দল পাঠানোর আভাসও দেন তিনি।

নববর্ষ উপলক্ষে উত্তর কোরিয়ার টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণে কিম এই বার্তা দেন। কিম বলেন, পুরো যুক্তরাষ্ট্রই উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রের পাল্লার মধ্যে রয়েছে। কোনো ফাঁকা বুলি নয়, এটাই বাস্তবতা।

 

আন্তর্জাতিক চাপ উপেক্ষা করেও পিয়ংইয়ং গত বছর যে আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। যা যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডের যে কোনো জায়গায় আঘাত হানতে সক্ষম বলে পর্যবেক্ষকরাও ধারণা করছেন। এরপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞার মুখেও পড়তে হয়েছে দেশটিকে। তবে পারমাণবিক বোমা ও ব্যালিস্টিক মিসাইল তৈরির পরিমাণ ও গতিতে এখনও সন্তুষ্ট নন কিম। এটা আরও বাড়ানো উচিৎ বলেও মনে করেন তিনি। 

 

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে হুশিয়ারি উচ্চারণ করলেও ওই অঞ্চলে দেশটির অন্যতম মিত্র দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা প্রশমনের ইঙ্গিত দেন কিম। তিনি বলেছেন, ‘২০১৮ সাল দুই কোরিয়ার জন্যই গুরুত্বপূর্ণ বছর। উত্তর কোরিয়া এ বছরই প্রতিষ্ঠার ৭০তম বার্ষিকী উদযাপন করতে যাচ্ছে, আর দক্ষিণ কোরিয়া এ বছর আয়োজন করেছে শীতকালীন অলিম্পিক।’ সেই অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার অ্যাথলেটদের অংশগ্রহণকে দুদেশের মানুষের মধ্যে ঐক্যের সুযোগ হিসেবেও দেখছেন কিম।-বিবিসি।

আরো দেখুন

সর্বশেষ ফটো